web analytics
মিসির আলি সিরিজের প্রথম বই
সিরিজ
বিভাগ উপন্যাস
ভাষা
স্বত্ব
ডাউনলোড
‘দেবী’ হুমায়ূন আহমেদের মিসির আলি সিরিজের প্রথম উপন্যাস। উপন্যাসের প্রধান চরিত্র রানু নববিবাহিতা, কিশোরী। তার ESP ক্ষমতা আছে। সে ঘরের বাইরে ও ভিতরে টের পায় কোনো একজনের অস্তিত্ব, ভবিষ্যতের অনেক ঘটনা আগে থেকে বলে দিতে পারে। প্রায় রাতে সে দুঃস্বপ্ন দেখে। এছাড়া গভীর রাতে মাঝে মাঝে তাকে কেউ নাম ধরে ডাকে, তখন নুপুরের শব্দ পাওয়া যায়, অপার্থিব ফুলের সুগন্ধ পাওয়া যায়। রানুর স্বামী আনিসের চোখে সে অপ্রকৃতিস্থ। ঘটনাচক্রে আনিসও সন্দেহজনক শব্দ পায় — কিছু বুঝতে পারে না। রানুর দুঃস্বপ্ন এবং অদ্ভুত আচরণের সূত্রধরে তার স্বামী আনিস মিসির আলির শরণাপন্ন হয়। মিসির আলি রানুর কাছ থেকে তার অতীত জীবনের দুর্ঘটনা জানতে পারেন আর বুঝতে পারেন তার অডিটরি হ্যালুসিনেশন হচ্ছে। তিনি রানুদের দেশের বাড়ি গিয়ে খোঁজখবর শুরু করেন। মিসির আলি রানুর গল্প শুনে স্বভাবসুলভ তদন্ত করে যুক্তি দিয়ে রানুর গল্পের ব্যাখ্যা দাঁড় করান।
উপন্যাসের আরেক গুরুত্বপূর্ণ চরিত্র নীলুফার। নীলু হলো রানুদের বাড়িওয়ালার মেয়ে এবং মিসির আলীর ছাত্রী। যে একাকীত্বকে কাটানোর জন্য পত্রিকার বিজ্ঞাপনের সূত্রধরে খুব খারাপ একজন মানুষের খপ্পড়ে পড়ে। রানু তা ESP ক্ষমতার মাধ্যমে জানতে পারে, সে জানায় নীলুর খুব বিপদ — তাকে অপহরণ করে মেরে ফেলা হবে। রানু তা আটকাতে চেষ্টা করে। এরপর নীলুর বিপদ জানতে পেরে রানু অসুস্থ হয়ে পড়ে। রানুর মৃত্যু হয়। এবং (রানুর আত্মা) অলৌকিক এক ঘটনার মধ্যদিয়ে নীলুকে সেই খারাপ মানুষটার হাত থেকে বাঁচায়।
রানু, মিশির আলী আর নীলু – তিনজনেই এমন এক জীবন-মৃত্যুর চক্রে পড়ে যায় যেখান থেকে বেরিয়ে আসা অসম্ভব। অতীন্দ্রিয়তা আর যুক্তির মাঝে এ এক রহস্য। হুমায়ূন আহমেদ এর সৃষ্টি মিসির আলী চরিত্রটার প্রতি অনেকের রয়েছে মুগ্ধতা।
হুমায়ূন আহমেদের ‘দেবী’ অন্য কোনো বিদেশী উপন্যাসের ছায়া অবলম্বনে লেখা কিনা এমন কোনো সূত্র পাওয়া যায় নি। এদিকে ‘দেবী’র দ্বিতীয় পার্ট বলে পরিচিত হুমায়ূন আহমেদের ‘নিশীথিনী’ উপন্যাসে ‘প্রকাশক প্রতিক্রিয়া’ অংশে প্রকাশক আলমগীর রহমান [অবসর প্রকাশনী] লিখেছেন, ‘…আর দেবীর মতোই এটিও একটি পূর্ণাঙ্গ উপন্যাস এবং আগে কোথাও প্রকাশিত হয় নি।…’
হুমায়ূন আহমেদ মিসির আলি চরিত্রটির ধারণা প্রথম পান যুক্তরাষ্ট্রের নর্থ ডাকোটায় পিএইচডি করার সময়, যখন তিনি স্ত্রীর সঙ্গে গাড়িতে ভ্রমণ করছিলেন।
Read online or Download this book

© বাংলাদেশ কপিরাইট আইন, ২০০০ অনুসারে সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত

এই বইটির স্বত্বাধিকার লেখক বা লেখক নির্ধারিত ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানের, অর্থাৎ বইটি পাবলিক ডোমেইনের আওতাভূক্ত নয়৷ কেননা, যে সকল বইয়ের উৎস দেশ বাংলাদেশ এবং বাংলাদেশ কপিরাইট আইন, ২০০০ অনুসারে, লেখকের মৃত্যুর ষাট বছর পর স্বনামে ও জীবদ্দশায় প্রকাশিত অথবা বেনামে বা ছদ্মনামে ও মরণোত্তর প্রকাশিত রচনা বা গ্রন্থসমূহ প্রথম প্রকাশের ষাট বছর পর পঞ্জিকাবর্ষের সূচনা থেকে কপিরাইট মেয়াদ উত্তীর্ণ হয়ে যায়৷ অর্থাৎ, ১ জানুয়ারি, 2021 সাল হতে 1961 সালের পূর্বে প্রকাশিত (বা পূর্বে মৃত লেখকের) সকল রচনা পাবলিক ডোমেইনের আওতাভুক্ত হবে। এবং 1961 সালের পরে প্রকাশিত বা মৃত লেখকের বইসমূহ পাবলিক ডোমেইনের আওতাভূক্ত হবে না৷

আইনি সতর্কতা

প্রকাশক এবং স্বত্বাধিকারীর লিখিত অনুমতি ছাড়া এই বইয়ের কোনও অংশেরই কোনওরূপ পুনরুৎপাদন বা প্রতিলিপি করা যাবে না, কোন যান্ত্রিক উপায়ের (গ্রাফিক, ইলেকট্রনিক বা অন্য কোনও মাধ্যম, যেমন ফটোকপি, টেপ বা পুনরুদ্ধারের সুযোগ সম্বলিত তথ্য-সঞ্চয় করে রাখার কোনও পদ্ধতি) মাধ্যমে প্রতিলিপি করা যাবে না বা কোন ডিস্ক, টেপ, পারফোরেটেড মিডিয়া বা কোনও তথ্য সংরক্ষণের যান্ত্রিক পদ্ধতিতে পুনরুৎপাদন করা যাবে না। এই শর্ত লঙ্ঘিত হলে উপযুক্ত আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করা যাবে।
আপনার জন্য প্রস্তাবিত বইসমূহ
মন্তব্য করুন
Scroll Up
WhatsApp chat